কবিতা: রাজ্যের স্বাতন্ত্র্য রচক | কবি: মুহাম্মদ নুর কাদের

রাজ্যের স্বাতন্ত্র্য রচক
মুহাম্মদ নুর কাদের 

বহু শত দেশের ভীড়ে অগণিত জান,
এই দেশের মাঝে মুজিব তুমি 
অতুল মায়ের প্রাণ।
মুজিব তুমি প্রসূন বাগে
ফোটা রঁজিত ফুল,
জীবনি তোমার পড়ে অধম 
হয়েছি ব্যাকুল।
হে মহান সুদূরদর্শী অভিভাবক,
তুমি ছিলে মাতৃভূমির মস্তকে এক ছায়া,
কার্য তোমার প্রজ্ঞান দিলো
দেশের জন্য ছিলো কত মায়া।
মুজিব তুমি বায়ান্নরই অনশন করা নেতা,
রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে 
পেয়েছো অনেক ব্যাথা।
মুজিব তুমি এই ভূখণ্ডের
প্রত্যাশিত শ্বাস,
মুজিব তুমি বিজ্ঞ নেতা
ভাসানীর ঐ বিশ্বাস।
মুজিব তোমার মন্ত্রে ছিলো 
স্বাতন্ত্র্যের আলো,
এই ভূখণ্ড আজীবন তোমায় 
বেসে যাবে ভালো।
তোমার আহ্বানে সায় দিয়ে 
করেছে এই দেশ যারা জয়,
তত্ত্বে তোমার ছিলো আস্থা
রাখেনি বুকে কোন ভয়।
নিঃস্বার্থ জীবন তোমার 
জনতার মুখে কই,
শত কষ্টে বঙ্গবন্ধু 
এই দেশটাকে করে নিলো জয়।
চাওনি খানিক সুখের ছায়া 
জীবন দিলে দানী,
তাই তো যে আজ ১৫ই আগষ্ট 
জনতার চোখে পানি।
দেখিনি চোখে তোমায়  নেতা 
শুনেছি তোমার শান,
তুমি নেতা উছিলাদাতা 
বাংলা তোমার দান।
মনের কাবায় স্বর্ণাক্ষরে 
লিখা তোমার নাম,
সত্যে পথের পথিক বলে 
দেয়নি তারা দাম।
মুক্তি দানের ভক্তি তুমি আলোচনার সুর,
তবুও যে হায়! তোমার বুকে ঠেকেছে অসুর।
মীর জাফরি করেছে যারা 
পাইনি তারা রেহায়,
শহীদ তুমি, অমর তুমি
খোদা আছে সাথে তোমার সহায়।
ক্ষুব্ধ জীবন করেছো পার তুমি
মনোবল আর সংগ্রাম নিয়ে বেশ,
তোমার জীবনি বলতে গেলে
চলে যাবে দিন তবু হবে নাকো শেষ।

কোন মন্তব্য নেই

Featured post

কবিতা: তুমি আসবে বলে | কবি: ফারাবী আক্তার

তুমি আসবে বলে ফারাবী আক্তার ৩০/৭/২০১৯ তুমি আসবে বলে! কপালে একটা টিপ পরেছি। কানে ইয়া বড় দুল; নাকে নোলক পরেছি। তুমি আসবে বলে! চোখে কাজল পরেছি।...

Blogger দ্বারা পরিচালিত.